মাদক নির্মূলে কঠোর পদক্ষেপ চাই

– নুরুল আমিন।।

দেশে উদ্বেগজনকহারে মাদক ছড়িয়ে পড়েছে। সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে মাদক ঢুকে পড়েছে। মাদকের বিষাক্ত ছোবলে আমাদের সূর্যসন্তানরা দিশেহারা হয়ে যায়। নেশার ঘোরে তারা ভুলে যায় সোনালী সুন্দর জীবনের কথা। তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যত গড়ার স্বপ্ন অঙ্কুরেই বিনষ্ট হয়ে যায়। তারা পথের মাঝেই হয়ে যায় পথহারা। চারপাশে এতো আলো অথচ কোনো আলো তাদের চোখে পড়ে না। তাদের সামনে শুধু অন্ধকার গলির হাতছানি।
মাদকাসক্তদের পরিণতি হয় খুব করুণ। তাদের স্বাস্থ্য-চেহারা-তারুণ্যে ভাটা পড়ে। এমনকি তাদের বিবেক-বুদ্ধি লোপ পায়। তারা কর্মবিমুখ ও কর্মহীন হয়ে পড়ে। ফলে হয়ে ওঠে পরগাছা। ধীরে ধীরে তাদের জীবন নদীর তরঙ্গ থেমে যেতে থাকে। তারা হয়ে পড়ে অন্তঃসারশূন্য।
মাদক কেনার টাকা যোগান দিতে সেবনকারীরা চুরি, ছিনতাই ও দাঙ্গাহাঙ্গামাসহ বিবেক বর্জিত নানা অসামাজিক ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে। তারা হয়ে ওঠে অপরাধী। স্বাভাবিক জীবনের ছন্দ হারিয়ে ফেলে। সমাজ জুড়ে দেখা দেয় অস্থিরতা ও বিশৃঙ্খলা।
মাদক এক নিরব ঘাতক। যা তিলে তিলে মানুষের জীবনকে শেষ করে দেয়। আমাদের তরুণ প্রজন্মের একটা বড় অংশ মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছে। দিন দিন এ সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। কমছে না কোনভাবেই। দেশে নেশা জাতীয় দ্রব্যের বেচাকেনা ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়েছে। মাদক সেবন ক্ষতিকর জেনেও দেশের তরুণ সমাজ এই মরণ নেশায় পতিত হওয়া আমাদের জন্য খুবই বেদনাদায়ক।
তরুণরা আমাদের প্রাণশক্তি। আমাদের ভবিষ্যত। এক সময় তারা দেশের নেতৃত্ব দেবে এবং দেশ চালাবে। আমরা তরুণদের ওপর অনেক ভরসা রাখি। আমাদের আশা আকাঙ্খার প্রদীপ তরুণ সমাজ মরণ নেশা মাদকের বিষাক্ত ছোবলে বিনষ্ট হয়ে যাক, ধ্বংস হোক এটা কোনভাবে মেনে নেয়ার মত নয়।
মাদকের গডফাদাররা সব সময় ধরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়। তাদের ধরতে না পারলে মাদক নিয়ন্ত্রণ ও নির্মুল সম্ভব হবে না। এজন্য প্রশাসনকে কঠোর হতে হবে এবং সততার সঙ্গে শতভাগ সক্রিয় ও সাহসী ভূমিকা নিতে হবে।
মাদক নিয়ন্ত্রণ ও নির্মুল করতে সরকার সক্রিয়। কিন্তু মাদক বিক্রেতারা থেমে নেই। তারা নিত্য নতুন কৌশল অবলম্বন করে মাদক বাণিজ্য চালাচ্ছে। নতুন সিন্ডিকেট ও রুট তৈরি করে নতুন নামে মাদক আমদানি করা হয়। মদ, গাঁজা, হেরোইন, ইয়াবা, ফেনসিডিল মাদকের এসব নামের পরে নতুন করে খাট, ক্রিস্টাল, এমডিএমএ, আইস, আইপিআই, এনপিএস ও ঝাঁকি প্রভৃতি অদ্ভুত নাম ব্যবহার করা হয়। এমনকি তরুণদের আকৃষ্ট করার জন্য লোভনীয় অপার ও মাদকের রং পাল্টানোসহ আরো অনেক অভিনব কৌশল প্রয়োগ করে থাকে। মাদকের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা দেশের শত্রু, জাতির শত্রু এবং স্বপ্নবিরোধী। এদের যে কোন মূল্যে রুখতে হবে। তা না হলে দেশের ভবিষ্যত অত্যন্ত সঙ্কটাপন্ন।
মাদক নির্মূল করতে হলে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে, প্রতিটি মানুষকে সচেতন করতে হবে, গড়ে তুলতে হবে সামাজিক আন্দোলন, মাদক সরবরাহ বন্ধ করতে হবে, বিমান বন্দর, নদী পথ ও বর্ডারে নজরদারি বাড়াতে হবে, জিরো টলারেন্স নীতির সঠিক প্রয়োগ ও বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে হবে, বেকারত্ব দূর করতে হবে, সুস্থ বিনোদন ও খেলাধুলার পর্যাপ্ত সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে, প্রত্যেক অভিভাবক তাদের সন্তানের ওপর সতর্ক নজর রাখতে হবে। আশা করি সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মাদক নির্মূল করতে জোরালো ভূমিকা নেবেন।

লেখক : নুরুল আমিন, সাংবাদিক, কলামিস্ট, কবি ও প্রাবন্ধিক, লালমোহন, ভোলা। nurulamin911@gmail.com, 01759648626.

Categories Uncategorised

1 thought on “মাদক নির্মূলে কঠোর পদক্ষেপ চাই

  1. প্রিয় পাঠক, আপনার সুচিন্তিত মন্তব্য পেশ করে সঙ্গে থাকুন। লেখাটি পড়ার জন্য অভিনন্দন।

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Create your website at WordPress.com
Get started
%d bloggers like this:
search previous next tag category expand menu location phone mail time cart zoom edit close